অটিজিম আক্রান্ত যুবককে মারধরের ঘটনায় চেতলা থেকে আটক ৩

অটিজিম আক্রান্ত যুবককে মারধরের ঘটনায় চেতলা থেকে আটক ৩ নাবালককে।  রবিবার খাস কলকাতায় অটিজম আক্রান্ত যুবককে মারধরের অভিযোগের ঘটনা সামনে আসে। এই ঘটনা শুধু লজ্জার নয়, প্রশ্ন তুলে দেয়, সামাজিক নিরাপত্তা নিয়ে। এদিকে টালিগঞ্জ থানা সূত্রে খবর, রবিবার রাতে এই ঘটনার অভিযোগ পাওয়া মাত্রই তদন্ত শুরু করে পুলিশ। সোমবার সকালে নিগৃহীতের বাড়িতে যান টালিগঞ্জ থানার পুলিশ আধিকারিকরা। ঘটনাস্থলের সিসিটিভি ফুটেজ খতিয়ে দেখে অভিযুক্তদের চিহ্নিত করা হয়। তারপরই আটক করা হয় অভিযুক্ত তিন নাবালককে। জানা গিয়েছে, তারা প্রত্যেকেই চেতলা এলাকার বাসিন্দা। উচ্চমাধ্যমিক পাশ করেছে সদ্যই।

ঘটনার সূত্রপাত রবিবার সন্ধ্যায়। নিমন্ত্রণ বাড়িতে যাচ্ছিলেন চেতলা সেন্ট্রাল পার্কের বাসিন্দা অমিত্রজিৎ বিশ্বাস। চেতলা অটোস্ট্যান্ডে বেশ কয়েকজন যুবক তাঁর রাস্তা আটকান। তাঁকে নাচতে বলেন। তাতে রাজি হননি অমিত্রজিত। প্রতিবাদ করেন তিনি। বলেন, এখন অন্য জায়গায় যাচ্ছেন। একইসঙ্গে বলেন, পুলিশকে সবটা জানাবেন। তারপরই চরম হেনস্থা করা হয় অমিত্রজিতকে। মারধর করা হয়। চোখের পাশে আঘাত লাগে তাঁর। এই ঘটনায় অমিত্রজিৎ জানান, ‘হেঁটে রাসবিহারী যাচ্ছিলাম। চারটে ছেলে আমাকে নাচতে বলে। যেতে দিচ্ছিল না আমাকে। বললাম, পথ ছাড়ো। নাহলে কিন্তু পুলিশে যাব। এরপরই আমাকে মেরেছে।’

এরপরই সোজা বাড়ি গিয়ে মা-বাবাকে সবটা জানান অমিত্রজিৎ। ঘটনা জানার পরই ছেলেকে সঙ্গে নিয়ে মা হাজির হন টালিগঞ্জ থানায়। লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। তবে নির্দিষ্ট কারও নামে অভিযোগ করতে পারেননি। আক্রান্ত যুবকের মা মিতশ্রী বিশ্বাসের অভিযোগ, এর আগেও একাধিকবার হেনস্থা করা হয়েছে তাঁর ছেলেকে। কিন্তু বিষয়টি এবার শারীরিক হেনস্থার পর্যায়ে পৌঁছেছে। টালিগঞ্জ থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়। এমআর বাঙুর হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা করানো হয় অটিস্টিক যুবক অমিত্রজিৎকে।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

2 × four =