দত্তপুকুরের বেআইনি বাজি কারবারের মূল চক্রী গ্রেফতার

দত্তপুকুরে বিস্ফোরণকাণ্ডে বড় সাফল্য রাজ্যের স্পেশাল টাস্ক ফোর্সের। দত্তপুকুরে বেআইনি বাজি কারবারের মূল চক্রীকে গ্রেফতার করেছে এসটিএফ। ধৃতের নাম মহম্মদ নজরুল ইসলাম। কলকাতা বিমানবন্দর চত্বর থেকে ওই ব্যক্তিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। গোপন সূত্র মারফত খবর পেয়ে দমদম বিমানবন্দর চত্বরের বাইরে তৈরি ছিলেন রাজ্য পুলিশের এসটিএফ আধিকারিকেরা। আর তাতেই আসে সাফল্য। বৃহস্পতিবার সন্ধেয় বিমানবন্দরের বাইরে থেকে পাকড়াও করা হয় দত্তপুকুরের বেআইনি বাজি সরবরাহ কারবারের মূল পান্ডাকে।

এদিকে সূত্রে খবর, দত্তপুকুরে ভয়ঙ্কর বিস্ফোরণের পরপরই এলাকা থেকে চম্পট দিয়েছিল মহম্মদ নজরুল ইসলাম নামে ওই মূল চক্রী। এই ভয়ঙ্কর বিস্ফোরণের পরই চেন্নাইয়ে পালিয়ে যায় নজরুল। সেই সঙ্গে প্রচুর পরিমাণে বেআইনি বাজি ট্রাকে বোঝাই করে বাইরে পাচার করে দেওয়ার চেষ্টা চালানো হচ্ছিল। রাজ্য পুলিশের স্পেশাল টাস্ক ফোর্সের অভিযানে আগেই এমন বেশ কয়েকটি ট্রাক পাকড়াও করা হয়। গত ২৯ অগাস্ট এক বিশেষ অভিযানে পাঁচটি ট্রাক আটকেছিল এসটিএফ। প্রতিটি ট্রাকেই বোঝাই করা ছিল বেআইনি বাজি। এই ঘটনায় দুজনকে ইতিমধ্যেই গ্রেফতার করা হয় এবং আমডাঙা থানায় বিস্ফোরক আইনে মামলা রুজু করে তদন্তে নামে পুলিশ।

সেই সূত্র ধরেই তদন্তের অগ্রগতির সঙ্গে সঙ্গে রাজ্য পুলিশের স্পেশাল টাস্ক ফোর্সের হাতে এই নজরুলের বিষয়ে বিভিন্ন চাঞ্চল্যকর তথ্য উঠে আসে। এসটিএফের অফিসাররা গোপন সূত্র মারফত জানতে পারেন, বৃহস্পতিবার কলকাতা বিমানবন্দর চত্বর দিয়ে রাজ্যে ফিরে আসবে নজরুল। সেই মতো আগে ভাগে প্রস্তুত ছিলেন অফিসাররা। তাতেই ধরা পড়ে যায় দত্তপুকুর বাজি বিস্ফোরণ কাণ্ডের মূল চক্রী।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

eleven − one =