পেট্রাপোল সীমান্তে বিপুল সোনা উদ্ধার বিএসএফের

পেট্রাপোল সীমান্তে পাচারের আগে ফের বিপুল পরিমাণ সোনার বিস্কুট উদ্ধার করল বিসএসএফ । এই ঘটনায় শনিবার বিএসএফের তরফ থেকে জানানো হয় যে, গোপন সূত্রে খবর পেয়ে শুক্রবার সকালে একটি সন্দেহজনক ট্রাককে আটকায় বিএসএফের জওয়ানেরা। এরপর শুরু হয় তল্লাশি। তখনই ট্রাকের মধ্যে একটি কাপড়ে বাঁধা ২১টি সোনার বিস্কুট  উদ্ধার হয়। এরপরই বিএসএফ কর্মীরা ট্রাক-সহ সোনার বিস্কুট বাজেয়াপ্ত করে।

জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয় চালক সম্রাট বিশ্বাসকে। জিজ্ঞাসাবাদ চলাকালীন খবর আসে আরও বিস্কুট লুকানো আছে ট্রাকের মধ্যেই। এরপর সিভিল মেকানিককে ডেকে ট্রাকের ইঞ্জিন খুলে ফেলে বিএসএফ। শুরু হয় তল্লাশি। দেখা যায় সেখানে লুকানো রয়েছে ২৪টি সোনার বিস্কুট। দিনের শেষে মোট ৪৫টি সোনার বিস্কুট বাজেয়াপ্ত করে বিএসএফ। যার আনুমানিক মূল্য ৩ কোটি ১২ লক্ষ ৪৪ হাজার ৪২৪ টাকা।

এদিকে বিএসএফের জেরায় চালক সম্রাট জানায়, সে প্রায়শই পেট্রাপোল দিয়ে নানা পণ্য নিয়ে বাংলাদেশ যায়। গত ২১ আগস্ট ওই ট্রাকে স্পঞ্জ আয়রন বোঝাই করে বাংলাদেশে গিয়েছিল। ২৫ আগস্ট ভারতে ফেরার সময় বেনাপোল বাংলাদেশ পার্কিং এলাকায় সুমন মণ্ডল নামে এক যুবক তাঁর সঙ্গে যোগাযোগ করে। সেখানেই ৪৫টি সোনার বিস্কুট দেয়। সেগুলি গোপালনগর গ্রামের সলাম মণ্ডলের হাতে তুলে দেওয়ার নির্দেশ ছিল। সূত্রের খবর, এই সমস্ত চোরাকারবারীরা উত্তর ২৪ পরগনার কুখ্য়াত চোরাপাচারকারী আজগর শেখের হয়ে কাজ করে। তার বিচরণ ক্ষেত্র পেট্রাপোলের আশেপাশেই। ইতিমধ্যেই সুমন, সালামদের খোঁজ শুরু করেছে পুলিশ। পাশাপাশি সম্রাটের বিরুদ্ধেও আইনি পদক্ষেপ নেওয়ার কাজ শুরু হয়েছে। বাজেয়াপ্ত করা সোনা শুল্ক দফতরের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে।

এদিকে এরই পাশাপাশি বিএসএফের তরফ থেকে এও জানানো হয়েছে যে, ট্রাক চালকের বাড়ি উত্তর ২৪ পরগনা জেলার পিরোজপুরে।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

20 + seventeen =