আগে একটা বালতি ওল্টাক, তারপর সরকার ওল্টাবে, বিজেপিক কটাক্ষ মমতার

পঞ্চায়েত নির্বাচনের ফল প্রকাশের পরই কয়েক মাসের মধ্যে তৃণমূল সরকারের পতনের হুঁশিয়ারি শোনা গিয়েছিল বিজেপি রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদারের গলায়৷ একই হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন বনগাঁর বিজেপি সাংসদ শান্তনু ঠাকুরও৷ এদিন তারই পাল্টা জবাব দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। রাজ্য বিজেপি নেতাদের পাল্টা কটাক্ষ করে মুখ্যমন্ত্রী বলেন,‘আগে বালতি ওল্টাতে বলুন,তারপর সরকার ওল্টাবে। তোমাদের সরকার ইতিমধ্যেই উল্টে গিয়েছে। কালকের পর থেকে ওদের সরকারই ভয়ে থর থর করে কাঁপছে৷’বুধবার নন্দীগ্রামে পঞ্চায়েত ভোট পরবর্তী হিংসায় আহত তৃণমূল সমর্থকদের এসএসকেএম-এ দেখতে গিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেখান থেকেই এমন উক্তি করতে শোনা যায় তৃণমূল সুপ্রিমোকে। পাশাপাশি বিজেপিকে বিদ্ধ করে এও জানান, ওদের একটাই কাজ, হিংসা করো, বিভেদ ছড়াও আর মানুষের রক্তও নেয়। আগামী দিনে মানুষই এর বদলা নেবে। শান্তিপূর্ণ ভাবে ভোট দিয়ে বিজেপিকে পরাজিত করবে। ইন্ডিয়া উইল ফাইট দ্য ব্যাটেল।’এরই পাশাপাশি তৃণমূল কর্মীদের উপরে হামলার জন্য নাম না করে শুভেন্দু অধিকারীকেও দায়ী করে তোপও দাগেন মমতা। বলেন, ‘গদ্দারের সঙ্গে মিশে অত্যাচার করেছে। ভয় পাবেন না। পুলিশ কড়া ব্যবস্থা নেবে। তোমাদের ভয় পাওয়ার কিছু নেই। আমি যাব ওখানে।’
প্রসঙ্গত, মঙ্গলবারই বেঙ্গালুরুতে ২০২৪ লোকসভা নির্বাচনের জন্য বিরোধী জোট গঠন হয়েছে৷ যার নাম দেওয়া হয়েছে ইন্ডিয়া। এই নামও মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়েরই দেওয়া। এদিকে এদিন নন্দীগ্রামে রাজু গুড়িয়া নামে স্থানীয় এক বিজেপি নেতা তাঁদের উপরে হামলা চালিয়েছেন বলে মুখ্যমন্ত্রীর কাছে এ দিন অভিযোগ করেন আহত তৃণমূল কর্মী, সমর্থকরা। বিষয়টি দেখার জন্য পুলিশকে নির্দেশ দেন মুখ্যমন্ত্রী।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

5 × five =