পশ্চিমবঙ্গ দিবস নিয়ে রাজ্যপালকে বিঁধলেন মমতা

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অনুরোধ উপেক্ষা করে মঙ্গলবার রাজভবনে পালিত হয়েছে পশ্চিমবঙ্গ দিবস। এই প্রসঙ্গে মঙ্গলবার বিকেলেই তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করতে দেখা গেল মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে। একইসঙ্গে বিদ্ধ করলেন রাজ্যপাল সি ভি আনন্দ বোস এবং বিজেপিকে।

মমতার পশ্চিমবঙ্গ দিবস সম্পর্কে জানান, রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে এটা করা হয়েছে। প্রসঙ্গত, অনুষ্ঠান না করার জন্য রাজ্যপাল সিভি আনন্দ বোসকে চিঠি দিয়েছিলেন মমতা। ওই চিঠিতে লেখেন, এইদিনে বাংলা ভাগ করা হয়। এদিকে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক কারও সঙ্গে কোনও আলোচনা ছাড়া এই দিনটিকে পশ্চিমবঙ্গের প্রতিষ্ঠা দিবস হিসাবে চিহ্নিত করেছে। এটা অসাংবিধানিক। সঙ্গে মমতা এও জানিয়েছিলেন, ‘আমি মর্মাহত যে আপনি ২০ জুন পশ্চিমবঙ্গের প্রতিষ্ঠা দিবস পালনের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।‘

এদিনের এই অনুষ্ঠান প্রসঙ্গে মমতা এও জানান, ‘আমি এটা নিয়ে সোমবারই কড়া চিঠি দিয়েছিলাম। আমিও এই বাংলায় জন্মগ্রহণ করেছি। কোনওদিন পশ্চিমবঙ্গ দিবসের কথা শুনিনি। রাজনৈতিক উদ্দেশ্য নিয়ে ওরা পশ্চিমবঙ্গ দিবস পালন করেছে। কোনওদিন এখানে এইসব দিবস পালন হয়নি। এটা বাংলাকে অবমাননা করা। বাংলাকে অসম্মান করা। বাংলার মানুষের ঐতিহ্যের সঙ্গে রাজনৈতিক খেলা এটা। আমি এর ধিক্কার জানাই।’ এরই রেশ ধরে মমতা এও জানান, ‘রাজ্যপালের পদ পদ্মপাল হয়ে গিয়েছে।‘ প্রসঙ্গত, মঙ্গলবার সন্ধ্যা নাগাদ আচমকাই এসএসকেএমে আসেন মমতা। এসএসকেএম-এ এসে জানান, ‘আজ নবান্নে কেউ ছিল না। কাজ না থাকায় এখানকার ডাক্তারদের সঙ্গে একটু সময় কাটাতে আসি। রথযাত্রার শুভেচ্ছা জানাই।‘

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

two × five =