ডায়াবেটিসের হাত থেক বাঁচতে রোজ খান ভুট্টা

বর্ষা আসতেই গতি পেয়েছে ফসল চাষ। সবুজ হয়ে উঠছে গোটা দেশ। প্রায় সমস্ত রাজ্যেই এখন নানা ধরনের ফল, সবজির সমাহার। ব্যবসায়ীদের মতে বাজারেও দারুন বিক্রি বেড়েছে ফলের। যদিও বর্ষায় ভুট্টার চাহিদাই সবচেয়ে বেশি। এই মরশুমে অনেকেই ভুট্টা খেতে পছন্দ করেন। বৃষ্টিতে ভুট্টা খাওয়ার আনন্দই অন্য রকম। হালকা কাঠকয়লায় পোড়ানো, লেবু ও অন্য মশলা দিয়ে মাখা ভুট্টার স্বাদই আলাদা। তবে অনেকেই হয়তো জানেন না যে স্বাদের পাশাপাশি এটি শরীরের জন্যও খুব উপকারী। বিশেষ করে ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য। ডায়াবেটিস রোগীরা নিয়মিত এবং সঠিক পরিমাণে ভুট্টা খেলে শরীরে সুগারের মাত্রা নিয়ন্ত্রণে থাকে।

চিকিৎসকরা জানাচ্ছেন, ভুট্টা আসলে ‘হোল সিড’ বা গোটা দানা শস্য। এই ধরনের গোটা দানা যেভাবেই খাওয়া হোক তা শরীরের উপকার করে। নিয়মিত ভুট্টা খেলে শরীর সুস্থ থাকে। পাশাপাশি তাঁরা এও জানান যে, সাধারণত যে কোনও গোটা শস্য ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণ করে। তারই পাশাপাশি এটি শরীরের ওজনেও ভারসাম্য রাখে। ভুট্টা শরীরে রক্ত ও আয়রনের ঘাটতি পূরণ করে। এটি হজমেও সাহায্য করে। ফলে বিকেলে বা সন্ধ্যায় জলখাবার হিসেবে ভুট্টা খাওয়া যেতেই পারে।

শুধুমাত্র পশ্চিম ভারতে নয় সারাদেশেই এখন ভুট্টা খাওয়ার চল বেড়েছে। পশ্চিমবঙ্গ থেকে গুজরাত বা উত্তরে কাশ্মীর থেকে দক্ষিণে কেরালা, ভুট্টা এমনই খাবার যা ছোট বড় সকলেরই পছন্দ। ভুট্টা সাধারণত পঞ্জাব থেকে রাজ্যের বিভিন্ন জেলায় আমদানি করা হয়। অল্প আঁচে ভুট্টা পুড়িয়ে নানা রকম মশলা লাগিয়ে বিক্রি করা হয়। এর সুগন্ধ পথচারীদেরও আকৃষ্ট করে নিয়ে আসে। এই মুহূর্তে ভিলওয়াড়ার বাজারে প্রতি কুইন্টাল ভুট্টার দাম ১৬০০ টাকা।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

nineteen − six =