অবশেষে রেকর্ড দাম পতন কাঁচালঙ্কায়

অবশেষে শহর কলকাতা ও শহরতলিতে ঝাঁঝ কমল কাঁচা লঙ্কার। ৩৫০-৪০০ টাকা কেজি দাম থেকে কাঁচালঙ্কার দাম একদিনে কমে দাঁড়াল ১০০-১৫০ টাকায়। রেকর্ড পরিমাণে দামের পতনে স্বস্তিতে মধ্যবিত্ত।

গত কয়েকদিনে সবজি বাজারে আগুন দামের সাক্ষী রয়েছে সাধারণ মানুষ। উচ্ছে কেজি হিসেবে বিক্রি হয়েছে ৯০ টাকা, পটলের কেজি ছুঁয়ে ফেলেছিল ৬০ টাকা, গাঁটির কেজি বিক্রি হয়েছে ৮০ টাকা, ঢ্যাঁড়শের প্রতি কেজি বিকোচ্ছে ৮০থেকে ১০০ টাকা দরে। বাজারে কাঁচালঙ্কার দাম কমায় আশা করা হচ্ছে শীঘ্রই অন্য সবজির দামও নামবে।

বুধবার বাজারে কাঁচালঙ্কার দাম কমলেও ঢ্যাঁড়শের দাম এখনও চড়া। তবে সস্তায় পাওয়া যাচ্ছে কুমড়ো। প্রতি কেজির দাম রয়েছে ৩০-৪০ টাকা। পেঁপের প্রতি কেজির দাম রয়েছে ৪০ টাকা। বাজারে এখন সস্তায় মিলছে আলু। মধ্যবিত্তকে স্বস্তিতে রেখে আলুর দাম বাড়েনি। প্রতি কেজি আলুর দাম রয়েছে ১৮-২০ টাকা। চন্দ্রমুখী আলুর ক্ষেত্রে দাম রয়েছে ২২-২৫ টাকা। এদিকে টমেটোর দাম কেজি প্রতি ১০০-১৫০ টাকা। অন্য সবজির দাম কমলেও এখনই টমেটোর রেট খুব বেশি নামবে না বলেই জানাচ্ছে সংশ্লিষ্ট মহল। কারণ টমেটোর ব্যাপারে এখনও কলকাতাকে নির্ভর করতে হচ্ছে ভিন রাজ্যের টমেটোর উপরেই। ফলে দাম কমার খুব বেশি সুযোগ নেই। তবে ঢ্যাঁড়শ, কাঁচালঙ্কার মতো সবজি বাজারে ধীরে ধীরে আসতে শুরু করায় দাম কমতে চলেছে। কাটিহার থেকে মঙ্গলবারে কাঁচালঙ্কা এসেছে, শিয়ালদার কোলে মার্কেটে, যার জেরে পাইকারি রেট কমেছে। ফলে খুচরো বাজারেও নামছে দাম।

মাছের দামও রয়েছে চড়া বাজারে ছোট-বড় ইলিশের দেখা মিলছে। ৫০০ গ্রামের ইলিশের প্রতি কেজিতে দাম রয়েছে ৭০০ টাকা। বাজারে কাতলার প্রতি কেজিতে দাম রয়েছে ৩৫০-৪০০ টাকা। এছাড়া রুই মাছের কেজি রয়েছে ২০০-২৩০ টাকা। ফলে সবজি বাজারে দাম চড়া হলেও মাছের বাজারে যে স্বস্তি মিলবে, এমন আশাও নেই। পাশাপাশি মাংসের দামও আগুন। চিকেনের প্রতি কেজি রয়েছে ২২০-২৩০ টাকা। মাটনের প্রতি কেজিতে দাম রয়েছে ৭৫০-৮০০টাকা পর্যন্ত।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

two × 5 =