সিবিআইয়ের চিঠি পাননি দমকলমন্ত্রী সুজিত, জানালেন সাংবাদিক বৈঠকে

৫১ ক্যানাল স্ট্রিট অর্থাৎ রাজ্যের মন্ত্রী সুজিত বসুর ঠিকানায় একটি চিঠি পাঠিয়েছে সিবিআই, অন্তত এমনটাই খবর সিবিআই সূত্রে। কেন্দ্রীয় সংস্থার সেই চিঠি ইতিমধ্যেই সংবাদ মাধ্যমের সূত্রে প্রকাশ্যে এসেছে। সেই চিঠি অনুসারে বৃহস্পতিবার সকাল ১১ টায় সিবিআই দফতরে হাজিরা দেওয়ার কথা ছিল সুজিত বসুর। এরপর বেলা ২ টোর সময় সাংবাদিক বৈঠক করে সুজিত বসু জানান,  ‘চিঠি পেলাম না। যাওয়ার প্রশ্ন কোথায় আসছে কোথা থেকে? ৪০ বছরের রাজনীতিতে কেউ কোনও দিন প্রশ্ন তুলতে পারেনি।’ এরই সঙ্গে তাঁর সংযোজন, ‘যদি এজেন্সির মাধ্যমেই চিঠি সামনে আসত, তাহলে আজ না যাওয়ার পর এজেন্সি তো বলত যে উনি আসেননি?’ এরই পাশাপাশি সুজিত বসুর দাবি, সংবাদমাধ্যমে চিঠি প্রকাশ করে তাঁকে হেনস্থা করা হচ্ছে। তাঁর অভিযোগ, কেউ বা কার তাঁর রাজনৈতিক জীবনকে কালিমালিপ্ত করতে ষড়যন্ত্র করেছে।

বৃহস্পতিবারের সাংবাদিক বৈঠকে সুজিত বসু এও জানান, ‘আজ পর্যন্ত কোনও নোটিস পাইনি। আমার বিরুদ্ধে কেউ ষড়যন্ত্র করছে, কালি ছেটানোর চেষ্টা করছে। কারা এই কাজ করছে, তা খুঁজে বের করতে যত দ্রুত সম্ভব তদন্ত হোক।’ কারণ, এই ধরনের চিঠি সামনে এনে তাঁর সম্মানহানি করা হচ্ছে। সঠিক তদন্ত না হলে মানহানির মামলা করবেন বলেও হুমকি দিতে দেখা গেছে দমকলমন্ত্রীকে। এরই রেশ ধরে সুজিত বসু এও বলেন, ‘ছাত্রদের মধ্যে র‍্যাগিং-এর কথা বলা হচ্ছে, আমার মনে হচ্ছে এটাও আমার ক্ষেত্রে র‍্যাগিং।’

উল্লেখ্য, দিন কয়েক আগে কেন্দ্রীয় সংস্থা সূত্রে জানা যায়, সুজিত বসুকে পুর নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় তলব করা হচ্ছে। স্পিড পোস্টে সেই চিঠি পাঠানো হয়েছে বলেও জানা যায় সিবিআই সূত্রে। পরে সেই চিঠি প্রকাশ্যে আসে। সিবিআই-এর স্ট্যাম্প দেওয়া সেই চিঠিতে দেখা যাচ্ছে, ৫১ বি ক্যানাল স্ট্রিট, শ্রীভূমি- এই ঠিকানায় চিঠিটি পাঠানো হয়েছে। নির্বাচন কমিশনে জমা দেওয়া হলফনামা অনুযায়ী, এটাই সুজিত বসুর ঠিকানা। প্রশ্ন উঠেছে, চিঠিটা কি তাহলে মাঝপথেই উধাও হয়ে গেল? এদিকে সুজিত স্পষ্ট জানাচ্ছেন, চিঠি পেলে নিশ্চয় যাবেন তিনি।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

five × five =