অনেকটাই ভাল আছেন মমতা

পঞ্চায়েত ভোটের প্রচারে উত্তরবঙ্গ সফরে গিয়ে দুর্যোগের কবলে পড়ে সেবক এয়ারবেসে জরুরি অবতরণের সময়  পায়ে ও কোমরে চোট পান মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এরপর থেকে বাড়িতেই রয়েছেন তিনি। এসএসকেএমের চিকিৎসকদেরতত্ত্বাবধানে চলছে চিকিৎসা। যদিও চিকিৎসকেরা তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার পরামর্শ দিয়েছিলেন।

বুধবারের পর বৃহস্পতিবারেও একটি মেডিকেল টিম যায় মমতার কালীঘাটের বাড়িতে। প্রায় ২ ঘণ্টা পর তাঁদের মুখ্যমন্ত্রী শারীরিক অবস্থার পর্যবেক্ষণ করেন। এরপর চিকিৎসকেরা জানান, বৃহস্পতিবার প্রায় ২ ঘণ্টা ফিজিওথেরাপি হয় মমতার। আগের থেকে ভাল আছেন তিনি। তবে ব্যথা রয়েছে পায়ে। বর্তমানে চার পদ্ধতিতে চিকিৎসা হচ্ছে মুখ্যমন্ত্রীর। ফিজিক্যাল মেডিসিনের পরিভাষায় যে থেরাপির নাম ‘রাইস’ থেরাপি। অর্থাৎ, র-এ রেস্ট, আই -তে আইসপ্যাক, সি-তে কমপ্রেসন এবং ই-তে এলিভেশন। এই চার পদ্ধতিতেই মুখ্যমন্ত্রীকে সারিয়ে তুলতে চাইছেন চিকিৎসকেরা।

চিকিৎসকেরা আগেই জানিয়েছিলেন বাঁ পায়ে চোট পেয়েছেন মমতা। তার জন্য আগেই মমতাকে নিক্যাপ দেওয়া হয়। একইসঙ্গে ওই জায়গায় আইসপ্যাক লাগাতেও বলা হয়েছিল। নিয়ন্ত্রণ করতে বলা হয়েছে হাঁটাচলাও। আপাতত আগামী ১৫ দিন পুরোপুরি মমতাকে পুরোপুরি বিশ্রামে থাকতে বলেছেন এসএকেএমের চিকিৎসকেরা। তবে চিকিৎসকেরা স্পষ্ট জানাচ্ছেন দ্রুত সেরে উঠছেন তিনি। কাজ দিচ্ছে তাঁদের ট্রিটমেন্টে। শুক্রবারও ফের আসার কথা রয়েছে মেডিকেল টিমের। এখন চলবে ফিজিওথেরাপি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

6 − one =