বিরোধী জোটের নাম চূড়ান্ত, নতুন নাম হল ‘ইন্ডিয়া’

বিরোধী জোটের নাম চূড়ান্ত। নতুন নাম ‘ইন্ডিয়া’ অর্থাৎ ‘ইন্ডিয়ান ন্যাশনাল ডেভেলপমেন্ট ইনক্লুসিভ ইন্ডিয়া’। মঙ্গলবার বেঙ্গালুরুতে বিরোধী জোটের মহা বৈঠকে এই নাম চূড়ান্ত হয়েছে বলে সূত্রের খবর। আরও বেশ কয়েকটি নাম ইউপিএ-র চেয়ারপার্সন সোনিয়া গান্ধির কাছে পাঠানো হয়। তার থেকে এই নামটি চূড়ান্ত হয়েছে,এমনটাই খবর। বিরোধী দলের দুদিনের বৈঠক শেষে মঙ্গলবার কংগ্রেস সভাপতি জোটের নতুন নামকরণের কথা ঘোষণা করে বলন,নয়া এই জোটের নাম হল আইএনডিআইএ। তবে ‘ইন্ডিয়া’ নামকরণটি করা হয়েছে একটি বিশেষ কারণে। এই শব্দবন্ধের প্রতিটি বর্ণ একটি অর্থ বহন করছে। যা এই মহাগঠবন্ধনকে ব্যাখ্যা করছে। জানা গিয়েছে, বৈঠকে স্থির হয়েছে, ‘ইন্ডিয়া’-কে ভেঙে বলা হবে, ‘ইন্ডিয়ান ন্যাশনাল ডেমোক্রেটিক ইনক্লুসিভ অ্যালায়েন্স’। যেখানে ‘আই’ অর্থাৎ ইন্ডিয়া, ‘এন’ ফর ন্যাশানাল, ‘ডি’ ফর ডেমোক্র্যাটিক, ‘আই’ ফর ইনক্লুসিভ, ‘এ’ ফর অ্যালায়েন্স।
পাশাপাশি এও জানান, এরপর মহারাষ্ট্রের মুম্বইয়ে যে বৈঠক হবে সেখানে কোঅর্ডিনেশন কমিটি গঠিত হবে। ইন্ডিয়ান ন্যাশনাল ডেভেলপমেন্ট ইনক্লুসিভ অ্যালায়েন্সের পরবর্তী বৈঠক বসবে মুম্বইয়ে বলে জানান খাড়গে। সেখানে ১১ সদস্যের কোঅর্ডিনেশন কমিটি গঠিত হবে বলে বৈঠকে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। সেই কমিটি পরবর্তী বৈঠকের দিন স্থির করবে। এছাড়াও একটি সম্পাদকস্তরের কমিটি গঠিত হবে। এরই পাশাপাশি খাড়গের সংযোজন,২৬টি দলের যে জোট হচ্ছে, তার মূল উদ্দেশ্যই হচ্ছে দেশের গণতন্ত্রকে রক্ষা করা। এদিনই এনডিএ-র যে বৈঠক হতে চলেছে তাকেও কটাক্ষ করেন প্রবীণ কংগ্রেস নেতা। তিনি কটাক্ষের সুরে এও বলেন,’ওরা ৩০ দলের বৈঠকে বসতে চলেছে। জানি না, ওরা এতগুলি দল কোথা থেকে পেল! আসলে বিরোধী দলদের দেখে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ভয় পেয়েছেন।’
তবে জল্পনা ছড়িয়েছিল পটনার বৈঠকের পর থেকেই। বেঙ্গালুরুর বৈঠকের মাঝেই এ বিষয়ে সুর্নির্দিষ্ট বার্তা এল বিজেপি বিরোধী একাধিক রাজনৈতিক দলের তরফে। তৃণমূলের রাজ্যসভার নেতা ডেরেক ও’ব্রায়েনের একটি টুইটে আগেই সেই ইঙ্গিত মিলেছিল। তিনি লিখেছিলেন,’চক্‌ দে! ইন্ডিয়া’।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

9 + seven =