ব়্যাগিং রুখতে হেল্পলাইন নম্বর দিয়ে পোস্টার বিশ্ববিদ্যালয়ের সামনে

র‌্যাগিং রুখতে পদক্ষেপ খোদ মুখ্যমন্ত্রীর। আগেই হেল্পলাইন নম্বর চালু করার কথা ঘোষণা করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। গত মঙ্গলবার পুজো কমিটিগুলির সঙ্গে বৈঠক ছিল মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। সেই বৈঠকের মধ্যেই মমতা হঠাৎই অ্যান্টি র‌্যাগিং নম্বর ঘোষণা করেন। মুখ্যমন্ত্রীর সেই ঘোষণার পরই এবার যাদবপুর মেন হোস্টেলের বাইরে লালবাজারের তরফে লাগানো হল পোস্টার। শুধু যাদবপুর মেন হোস্টেল নয়, শহরের সব কলেজে, বিশ্ববিদ্যালয় এবং হোস্টেলের সামনে এই পোস্টার লাগানোর কাজ শুরু হয়েছে। পরে পুলিশের তরফ থেকে সেই নম্বর প্রকাশও করা হয়। নম্বরটি হল ১৮০০৩৪৫৫৬৭৮।২২ অগাস্ট থেকেই সেই নম্বর খুলে দেওয়া হয়। মুখ্যমন্ত্রী স্পষ্ট করে জানিয়ে দেন, যে কোনও কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়ে র‌্যাগিংয়ের কোনও ঘটনা ঘটলে এই নম্বরে ফোন করতে হবে। ফোন পেলেই সঙ্গে সঙ্গে ব্যবস্থা নিতে হবে। জেলায় জেলায় যে অ্যান্টি-র‌্যাগিং কমিটি আছে, তাদেরকে বিষয়টি জানানো হবে। সেখান থেকে সংশ্লিষ্ট শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে যোগাযোগ করা হবে। সঙ্গে এটাও বলে দেওয়া হয়, যিনি অভিযোগ করবেন, তাঁর পরিচয়ও গোপন রাখা হবে।

প্রসঙ্গত, গত ৯ অগস্ট যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের হস্টেলের তিন তলার বারান্দার নীচ থেকে উদ্ধার হয় প্রথম বর্ষের ছাত্রের দেহ। যা নিয়ে তোলপাড় রাজ্য। এই মামলা বিচারাধীন। এই ঘটনায় বৃহস্পতিবার আরও ৫ জনকে তলব করা হয়েছে।  তার মধ্যে পোস্টার পড়ল যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

4 − 2 =