আগামী কয়েকদিনে রাজ্য জুড়ে কমবে বৃষ্টিপাত

আগামী কয়েক দিনে রাজ্য জুড়ে বৃষ্টি কমবে। বাড়বে তাপমাত্রা। বাতাসে জলীয় বাষ্প থাকায় আর্দ্রতাজনিত অস্বস্তিও বাড়বে, এমনটাই জানাল আলিপুর আবহাওয়া দফতর।রবিবার রাজ্যজুড়ে আংশিক মেঘলা ছিল আকাশ। উত্তরবঙ্গে দুই জেলায় ভারী বৃষ্টি হয়েছে বলে জানানো হয়েছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর থেকে। তবে দক্ষিণবঙ্গে ভারী বৃষ্টি হয়নি।

আলিপুর আবহাওয়া দফতর সূত্রে খবর, তাপমাত্রার সঙ্গে বাতাসে জলীয় বাষ্প থাকায় আর্দ্রতাজনিত অস্বস্তি অনেকটাই বাড়বে। সোমবার থেকে বৃহস্পতিবার বৃষ্টির সম্ভাবনা কার্যত নেই বললেই চলে দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলিতে। আগামী ২৪ ঘণ্টার কলকাতার আবহাওয়া সম্পর্কে আলিপুর আবহাওয়া দফতরের পূর্বাভাস কলকাতায় আংশিক মেঘলা আকাশ। বৃষ্টির সম্ভাবনা কম। বজ্রবিদ্যুৎ-সহ সামান্য বৃষ্টি হতে পারে আগামী ২৪ ঘণ্টায়। তাপমাত্রা বাড়তে পারে। বাড়বে আর্দ্রতাজনিত অস্বস্তি। এদিকে রবিবার কলকাতায় সকালে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ২৬.৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস। যা স্বাভাবিক তাপমাত্রা। শনিবার বিকেলে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ২৯.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। যা স্বাভাবিক তাপমাত্রা থেকে ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস কম। বাতাসে জলীয় বাষ্পের পরিমাণ ৮১ থেকে ৯৭ শতাংশ। সামান্য বৃষ্টি হয়েছে গত ২৪ ঘণ্টায়। আগামী ২৪ ঘণ্টায় কলকাতা শহরে তাপমাত্রা থাকবে ২৭ থেকে ৩৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

উত্তরবঙ্গে রবিবার ভারী বৃষ্টি হলেও বৃষ্টির পরিমাণ ও ব্যাপকতা অনেকটা কমবে। আগামী ২৪ ঘণ্টায় শুধুমাত্র জলপাইগুড়ি ও আলিপুরদুয়ারে ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা। বাকি উপরের দিকের জেলা দার্জিলিং কালিম্পং এবং কোচবিহারে বিক্ষিপ্তভাবে হালকা মাঝারি বৃষ্টি। বাকি জেলাতে বৃষ্টির সম্ভাবনা কম। আগামী কয়েক দিনের তাপমাত্রা বাড়বে। বাড়বে আর্দ্রতা জনিত অস্বস্তি। সোমবার থেকে শুধুমাত্র উপরের দিকের জেলাগুলিতে বিক্ষিপ্তভাবে হালকা মাঝারি বৃষ্টি চলবে।  দক্ষিণবঙ্গে বৃষ্টির সম্ভাবনা কার্যত অনেকটাই কমে যাবে সোমবার থেকে। আগামী ২৪ ঘণ্টায় বিক্ষিপ্তভাবে বজ্রবিদ্যুৎ-সহ হালকা মাঝারি বৃষ্টি। বৃষ্টির সম্ভাবনা বেশি উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনা এবং মুর্শিদাবাদ ও নদিয়া জেলায়। সোমবার থেকে চার-পাঁচ দিনের মধ্যে অন্তত ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা বাড়তে পারে বলে অনুমান আবহাওয়াবিদদের।

এদিকে আলিপুর আবহাওয়া দফতরের তরফ থেকে এও জানানো হয়েছে, মৌসুমী অক্ষরেখা উত্তর প্রদেশের বরেলি হয়ে গোরখপুর এবং বিহারের পাটনার ওপর দিয়ে এ রাজ্যের শান্তিনিকেতন ও কাঁথির উপর দিয়ে পূর্ব ও দক্ষিণ-পূর্ব দিকে এগিয়ে উত্তর-পূর্ব বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত বিস্তৃত। এদিকে একটি ঘূর্ণাবর্ত রয়েছে উত্তর বাংলাদেশ ও সংলগ্ন এলাকায়। উত্তরবঙ্গ থেকে উত্তর বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত একটি অক্ষরেখা তৈরি হয়েছে। এদিকে উত্তর-পূর্ব ভারতের রাজ্যগুলিতে বৃষ্টি চলবে বলেও জানাচ্ছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর। ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টি হবে অরুণাচলপ্রদেশ আসাম মেঘালয় মনিপুর মিজোরাম নাগাল্যান্ড ত্রিপুরাতে। কঙ্কন, গোয়াতে বিক্ষিপ্তভাবে ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা। তামিলনাড়ু, পণ্ডিচেরি, করাইকাল এবং ওড়িশাতে। ভারতের বেশিরভাগ জায়গা থেকে বৃষ্টির সম্ভাবনা কমবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

17 + eight =