কাশ্মীরে নিখোঁজ জওয়ান, আশঙ্কা অপহরণের

কাশ্মীরে নিখোঁজ এক বছর পঁচিশের এক জওয়ান। দক্ষিণ কাশ্মীরের কুলগাম জেলার বাসিন্দা জাভেদ আহমেদ নামে ওই জওয়ান ভারতীয় সেনায় রাইফেলম্যান হিসেবে কাজ করেন বলে কাশ্মীর পুলিশ  সূত্রে খবর। সঙ্গে এও জানা গেছে, জাভেদ কিছুদিন আগেই ছুটি নিয়ে বাড়ি ফিরেছিলেন। তবে শনিবার সন্ধে থেকে তাঁর কোনও খোঁজ মিলছে না। পরিবারের লোকজন কোনওভাবে তাঁর সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারছে না বলেও জানাচ্ছে কাশ্মীর পুলিশ।

এদিকে জাভেদ আহমেদের পরিবার সূত্রে খবর, শনিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টা নাগাদ ওই যুবক কিছি জিনিস কিনতে দোকানে বেরিয়েছিলেন। নিজের অল্টো গাড়ি চালিয়েই বাজারে গিয়েছিলেন তিনি। রাত ৯টা পর্যন্ত তিনি বাড়ি না ফেরায় খোঁজ শুরু করেন পরিবারের সদস্যরা। এরপর খবর পেয়ে খোঁজ শুরু করে পুলিশ। পুলিশ গাড়িটি বাজারের কাছেই খুঁজে পায়। তবে তাতে রক্ত লেগে রয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। ওই জওয়ান কোথায় গেলেন, তা বুঝতে পারছেন না পুলিশ আধিকারিকেরাও। তবে এই ঘটনায় ইতিমধ্যেই অভিযোগের ভিত্তিতে কয়েকজন সন্দেহভাজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। একইসঙ্গে শুরু হয়েছে জাভেদের খোঁজে তল্লাশিও। পরিবারের আশঙ্কা ওই যুবককে অপহরণ করেছে জঙ্গিরা।

এদিকে তাঁর মুক্তির দাবি জানিয়ে পরিবারের তরফে একটি ভিডিয়ো বার্তা দেওয়া হয়েছে। ভিডিয়ো বার্তায় ওই যুবকের মা-কে বলতে শোনা যাচ্ছে, ‘আমাদের দয়া করুন। আমার ছেলেকে ছেড়ে দিন। আমি ওকে আর সেনাবাহিনীতে কাজ করতে দেব না।’ কাশ্মীরে এভাবে অপহরণের ঘটনা নতুন নয়। এর আগে একাধিক জওয়ানকে এভাবে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে গিয়ে হত্যা করেছে জঙ্গিরা। তাই এই জওয়ানের নিখোঁজ হওয়ার ঘটনায় আতঙ্ক বাড়ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

one × two =