আইএএস, আইপিএসদের একাংশ পক্ষপাতদুষ্ট, জানালেন রাজ্যপাল

বাংলার সাংবিধানিক প্রধান হিসেবে দায়িত্ব নেওয়ার পর থেকেই নানা বিষয়ে একের পর এক পদক্ষেপ নিতে দেখা গেছে রাজ্যপাল সিভি আনন্দ বোসকে। পঞ্চায়েত নির্বাচন নিয়ে স্পষ্ট বার্তাও দিয়েছেন, তিনি শুধু রাজভবনের ভিতরে বসে নয়, গ্রাউন্ড জ়িরোয় পৌঁছে গিয়ে বাংলার জন্য, বাংলার মানুষের জন্য কাজ করতে চান তিনি। এদিকে তাঁর এই ভূমিকায় সমালোচনায় বিদ্ধ করেছে রাজ্যের শাসক দল। এদিকে এই মুহূর্তে রাজ্যের বিশ্ববিদ্যালয়ে উপাচার্য নিয়োগ ঘিরে নবান্নের সঙ্গে রাজভবনের সংঘাত চরমে। এমনই এক প্রেক্ষিতে রাজ্যপাল বোস সোমবার এও জানান, বাংলার কোনও কোনও আইএএস ও আইপিএস পক্ষপাতদুষ্ট। যদিও রাজ্যপাল পাশাপাশি এও জানান যে,তাঁর এই ধারনা কেবল একাংশের আমলা ও পুলিশকর্তাদের বিষয়েই। সব আইএএস, আইপিএস যে পক্ষপাতিত্ব করেন না, সে কথাও জানান রাজ্যপাল বোস। এদিন সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে বাংলার সাংবিধানিক প্রধান বললেন, তিনি এ রাজ্যে কাজ করতে পেরে ভীষণ খুশি। এরপরই বাংলার আইএএস-আইপিএসদের পক্ষপাতদুষ্ট আচরণ করেন কি না, তা নিয়ে প্রশ্ন করা হলে  রাজ্যপাল রাখঢাক না করেই জানান, ‘কেউ কেউ পক্ষপাতদুষ্ট, সকলে নয়।’ উল্লেখ্য, রাজ্যের আমলা ও পুলিশকর্তাদের একাংশের বিরুদ্ধে পক্ষপাতিত্বের অভিযোগ এর আগেও বিভিন্ন সময়ে উঠেছে। অবশ্য, সেই অভিযোগ ছিল রাজ্যের বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলির তরফে। তবে এবার খোদ বাংলার সাংবিধানিক প্রধানের মুখেও একই ধরনের কথা শোনা গেল।

বাংলার সাংবিধানিক প্রধান হিসেবে রাজ্যপাল বোসের এই ভূমিকা মোটেই ভাল চোখে দেখছে না রাজ্যের শাসক শিবির। তৃণমূল মুখপাত্র কুণাল ঘোষ এদিন সাংবাদিক বৈঠকে বলেছেন, ‘রাজ্যপাল বিজেপির এজেন্টের মত আচরণ করছেন। এক্তিয়ার বহির্ভূত কাজ করছেন।’

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

five × one =