ভোট গণনার দিন রাতে উত্তপ্ত অশোকনগর

ভোট গণনার দিনেও হিংসা। মঙ্গলবার রাতে উত্তর ২৪ পরগনার অশোকনগরে সামনে এল ফের সেই হানাহানির ছবি। স্থানীয় সূত্রে খবর, ভোট গণনা কেন্দ্রের সামনে ব্যাপক উত্তেজনা ছড়ালে পদক্ষেপ করে পুলিশ। পাল্টা পুলিশের উপর ইটবৃষ্টি, বোমা ছোঁড়া হয় বলেই জানা গেছে। এরপর পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পাল্টা কাঁদানে গ্যাসের সেল ফাটায় পুলিশ। সূত্রের খবর, মঙ্গলবার রাতে গণনাকেন্দ্রের বাইরে হঠাৎ-ই আইএসএফ এবং সিপিআইএমের প্রচুর কর্মী সমর্থক ভিড় করতে শুরু করেন। তখনই পুলিশ ওই জমায়েত সরাতে লাঠিচার্জ শুরু করে। পুলিশের সঙ্গে তুমুল ধস্তাধস্তি শুরু হয়ে যায় দুই দলের কর্মী-সমর্থকদের।

এদিকে জমায়েতকারীদের অভিযোগ, গণনাকেন্দ্রের বাইরে যে এলাকার মধ্যে ১৪৪ ধারা জারি ছিল তারা তার  বাইরে ছিলেন। এরপরেও লাঠিচার্জ করেছে পুলিশ। এদিকে পুলিশ যখন নির্বিচারে লাঠি চালাতে শুরু করে সেই সময় পুলিশ লক্ষ্য করে অনেকে ইটও ছোড়েন। তাতে বেশ কয়েকজন পুলিশ কর্মী আহত হন। তখন ভিড় ভাঙতে পাল্টা কাঁদানে গ্যাসের সেল চার্জ করে পুলিশ।

এই ঘটনায় অশোকনগরের বিধায়ক নারায়ণ গোস্বামী জানান, ‘যে অবস্থা তৈরি হয়েছিল তা নিয়ন্ত্রণ করতেই পুলিশকে লাঠিচার্জ করতে হয়েছে। কাঁদানে গ্য়াসের সেলও ফাটাতে হয়েছে। অন্যদিকে বামেদের দাবি, ওই ভিড়ে অনেক সাধারণ মানুষও ছিল। পুলিশ কিছু না বুঝিয়েই নির্বিচারে লাঠিচার্জ করেছে।’ এদিকে পুলিশের দাবি, যাঁরা ১৪৪ ধারার মধ্যে চলে এসেছিলেন তাঁদেরই সরানোর চেষ্টা করা হয়েছিল। কিন্তু, অনেকে সরতে না চাইলে লাঠিচার্জ করা হয়।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

3 × one =