দাম বাড়ল এলপিজির বাণিজ্যিক সিলিন্ডারের

মাসের ৩ দিন কাটতে না কাটতেই এলপিজির দামে এল বদল। মঙ্গলবার ৪ জুলাই থেকেই বদলে গেল গ্যাস সিলিন্ডারের দাম। তবে আমজনতার উপর আর প্রত্যক্ষ চাপ না বাড়িয়ে বৃদ্ধি করা হল বাণিজ্যিক গ্যাস সিলিন্ডারের দাম। মঙ্গলবার সরকারি তেল সংস্থাগুলির তরফে বাণিজ্যিক গ্যাসের দাম ৭ টাকা সিলিন্ডার পিছু বৃদ্ধি করা হয়েছে। দাম বৃদ্ধির ফলে কলকাতায় বাণিজ্যিক গ্যাস সিলিন্ডারের নয়া রেট দাঁড়াল ১৯০২ টাকা টাকায়। যদিও গার্হস্থ্য গ্যাস সিলিন্ডারের রেটে কোনও পরিবর্তন আসেনি।

প্রসঙ্গত, টানা কয়েক মাস দাম কমানোর পরে মঙ্গলবার বাড়ানো হয়েছে গ্যাস সিলিন্ডারের দাম। জুন মাসের শুরুতে বাণিজ্যিক গ্যাস সিলিন্ডারের দাম ৮৩ টাকা ও মে মাসের শুরুতে বাণিজ্যিক গ্যাস সিলিন্ডারের দাম ১৭২ টাকা কমানো হয়। ফলে গত ৩ মাসে বাণিজ্যিক গ্যাস সিলিন্ডারের রেট যেখানে ২৫৫ টাকা কমেছে, তার বদলে দাম বৃদ্ধি করা হয়েছে ৭ টাকা। এই দাম বৃদ্ধির জেরে কলকাতায় যেখানে বাণিজ্যিক গ্যাসের দাম ১৯০২ টাকা, তেমনই দিল্লিতে দাম রয়েছে ১৭৮০ টাকা। মুম্বই শহরে বাণিজ্যিক গ্যাস সিলিন্ডারের দাম দাঁড়িয়েছে ১৭৪০.৫০ টাকায়। চেন্নাইতে ১৯ কেজির সিলিন্ডারের দাম রয়েছে ১৯৫২ টাকা।

তবে বাণিজ্যিক গ্যাস সিলিন্ডারের এই দাম বৃদ্ধিতে বিপাকে পড়েছেন ছোট ও মাঝারি মাপের হোটেল মালিকরা। বিশেষ করে ছোট রেস্টুরেন্ট চালানো সাধারণ দোকানিরা নিতান্তই অখুশি। তাঁদের আশঙ্কা পরপর এবার দাম বাড়ানো হবে কি না তা নিয়েও। যদিও বাণিজ্যিক গ্যাস সিলিন্ডারের দাম বাড়লে ঘুরিয়ে খরচ বৃদ্ধির আশঙ্কা থাকে আমজনতারও। কারণ গ্যাসের দাম বৃদ্ধিতে খাবারের প্লেটের দাম বেড়ে গেলে সেই খাবার কিনতে বেশি টাকা খরচ করতে হয় গ্রাহকদেরই। এদিকে গত কয়েক মাস ধরেই গার্হস্থ্য সিলিন্ডারের দাম রয়েছে স্থির। কলকাতায় ১৪ কেজির গার্হস্থ্য সিলিন্ডারের দাম রয়েছে ১১২৯ টাকা। নয়াদিল্লিতে এই সিলিন্ডারের দাম রয়েছে ১১০৩ টাকা। মুম্বইতে ঘরোয়া সিলিন্ডারের দাম রয়েছে ১১০২.৫০ টাকা ও চেন্নাইতে এলপিজি সিলিন্ডার বিক্রি হচ্ছে ১১১৮.৫০ টাকায়। অর্থাৎ অন্যান্য মেট্রো শহরের কলকাতাতেই গ্যাস সিলিন্ডারের দাম মহার্ঘ্য।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

six + nineteen =