জমি দেওয়ার নামে কোটি টাকার প্রতারণার অভিযোগ তৃণমূল নেতার বিরুদ্ধে

ভিন রাজ্যে ব্যবসায়ীদের জমি দেওয়ার নামে কোটি টাকার প্রতারণার অভিযোগ তৃণমূল নেতা নিরু পাসোয়ান এবং তাঁর দাদার বিরুদ্ধে। শুধু তিনি নয়, তাঁর দাদার বিরুদ্ধেও একই অভিযোগ। গোটা ঘটনায় অভিযোগ দায়ের হয়েছে থানায়। ঘটনার পর থেকে পলাতক অভিযুক্তরা।

পুলিশ সূত্রে খবর, ঝাড়খণ্ডের দুজন ব্যবসায়ীকে রাজারহাট নিউটাউনে জমি দেবেন বলেছিলেন এই নিরু পাসোয়ান ও তাঁর দাদা। ওই দুই ব্যবসায়ীর কাছ থেকে প্রায় ১ কোটি ৯০ লক্ষ টাকা প্রতারণার এই অভিযোগ উঠেছে তৃণমূল কংগ্রেস হিন্দি প্রকোষ্ঠের সভাপতির বিরুদ্ধে। অভিযোগ, তাঁদের কাছ থেকে টাকা নেওয়া পর আর জমি দেয়নি। এরপর প্রতারিত ব্যবসায়ীরা যুব তৃণমূল নেতার নামে ইকোপার্ক থানা ও বেলঘড়িয়া থানায় অভিযোগ দায়ের করে। ব্যবসায়ীদের দাবি, রাজ্য সরকারের নাম ভাঙিয়ে অভিযুক্তরা বিভিন্ন ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে টাকা তুলতেন।

গোটা ঘটনায় সিপিএম নেতা তথা প্রাক্তন বিধায়ক মানস মুখোপাধ্যায় জানান, ‘এই সমস্ত অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে অবিলম্বে পুলিশের ব্যবস্থা নেওয়া উচিত। তা না হলে রাজ্যের মানুষ বাইরের রাজ্যে গিয়ে মান সম্মান পাবে না। এই সমস্ত ব্যাপারে তৃণমূল সরকারের কড়া পদক্ষেপ নেওয়া উচিত।’ তৃণমূল মুখপাত্র তথা বরানগরের বিধায়ক তাপস রায়ও বলেন, ‘বিষয়টি আমার জানা নেই। যদি এরকম ধরনের কোনও ঘটনা ঘটে থাকে। তাহলে দলগতভাবে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

এদিকে ২০২৪-এর আগে বড় ইস্য়ু এবার তৃণমূল বিরোধী শিবিরের হাতে। তৃণমূ যুবনেতার এই ঘটনায় সরব হয়েছে বিজেপি নেতৃত্ব। বিজেপি নেতা কিশোর কর জানান, ‘তৃণমূল কংগ্রেসের নেতৃত্বে নেতারা এই ধরনের ঘটনা ঘটাচ্ছেন। আসলে দল থেকে এরা ভাগ বাটোয়ারা পায়। তাই পরবর্তী সময়ে এই ধরনের ঘটনা ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করে।’ ঘটনার পর থেকে পলাতক অভিযুক্ত তৃণমূল যুবনেতা নিরু পাসোয়ান। তার খোঁজে তল্লাশি চালাচ্ছে পুলিশ।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

1 × one =