জামিনের পর ফের গ্রেফতার ইমরান

সকালেই জামিনে মুক্তি পেলেও মুক্তি বেশিক্ষণ স্থায়ী হল না। মঙ্গলবার সকালে জামিন পাওয়ার কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই ফের গ্রেফতার হলেন ইমরান। এবার সাইফার মামলায় প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রীকে গ্রেফতার করল পাকিস্তান পুলিশ। প্রসঙ্গত, নিম্ন আদালতের রায় খারিজ করে তোষাখানা মামলায় তাঁর ৩ বছরের কারাদণ্ডের উপর স্থগিতাদেশ দিয়ে জামিন দিয়েছিল ইসলামাবাদ হাইকোর্ট।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, অফিসিয়াল গোপনীয়তা আইনের ভিত্তিতে সাইফার মামলায় প্রাক্তন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানকে এদিন গ্রেফতার করা হয়েছে। ৩০ অগাস্ট, বুধবার তাঁকে আদালতে পেশ করা হবে।ফলে আপাতত অ্যাটক জেলেই জেল হেফাজতে রাখা হয়েছে ইমরান খানকে।

প্রসঙ্গত, তোষাখানা মামলায় অ্যাটক জেলে বন্দি ছিলেন ইমরান খান। এর মধ্যেই ইমরানের বিরুদ্ধে দায়ের হওয়া সাইফার মামলার তদন্ত শুরু করেছে পাক গোয়েন্দা সংস্থা, ফেডারেল ইনভেস্টিগেশন এজেন্সি। গত রবিবার সকালে এফআইএ-র ৬ সদস্যের একটি দল অ্যাটক জেলে গিয়ে সাইফার মামলায় ইমরান খানকে জিজ্ঞাসাবাদ করে। ইমরান শান্তভাবেই গোয়েন্দাদেরা প্রতিটি প্রশ্নের জবাব দেন এবং তদন্তে সহযোগিতা করেন বলে সূত্রের খবর। কিন্তু, সাইফার অর্থাৎ যে ডকুমেন্টটি প্রকাশ্য জনসভায় প্রদর্শন করা নিয়ে মামলা, সেটি আদতে সাইফার নয় বলে দাবি জানান ইমরান। এমনকি, প্রধানমন্ত্রী হিসাবে যে কোনও ডকুমেন্ট তাঁর নিজের কাছে রাখার অধিকার ছিল বলেও জানান ইমরান। যদিও কেন তিনি সেটা প্রকাশ্য জনসভায় প্রদর্শন করলেন, সে ব্যাপারে গোয়েন্দাদের জবাব দিতে পারেননি ইমরান। এমনকি, গোয়েন্দারা ওই ডকুমেন্টটি চাইলে ইমরান বলেন, সেটি কোথায় রেখেছেন তাঁর মনে নেই। এর পরিপ্রেক্ষিতেই এবার ইমরানকে গ্রেফতার করে পাক পুলিশ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

10 + 17 =