চাঁদে বিশাল খনিজ ভান্ডারের হদিশ দিল প্রজ্ঞান রোভার

খনিজের বিশাল ভাণ্ডারের খোঁজ মিলল চাঁদে। ইসরো সূত্রে খবর, অন্তত এমনই হদিশ দিল প্রজ্ঞান রোভার। চাঁদে বিপুল পরিমাণ সালফারের খোঁজ পেয়েছে প্রজ্ঞান। সালফার ছাড়া চাঁদের মাটিতে অক্সাইডেরও খোঁজ মিলেছে। এখানেই প্রশ্ন তাহলে কী জলও রয়েছে চাঁদে? এবার জলেরই খোঁজ শুরু করেছে প্রজ্ঞান রোভার। চাঁদে যদি জলের হদিশ মেলে তাহলে যে সেটা মহামূল্যবান রত্ন পাওয়ারই সামিল হবে।

ইসরো সূত্রে খবর, চাঁদে বিপুল পরিমাণ সালফারের খোঁজ দিয়েছে প্রজ্ঞান রোভার। এছাড়া অ্যালুমিনিয়াম, ক্যালসিয়াম, লোহা, ক্রোমিয়াম, টাইটেনিয়াম, ম্যাঙ্গানিজ, সিলিকনের অস্তিত্বও পাওয়া গিয়েছে চন্দ্রপৃষ্ঠে। এই সব খনিজের খোঁজ পাঠিয়েছে প্রজ্ঞানের পেলোড লেজার ইনডিউসড ব্রেকডাউন স্পেকট্রোস্কোপ বা এলআইবিএস। পাথর বা মাটিতে লেজার পালস ব্যবহার করে খনিজের চরিত্র বোঝার চেষ্টা করে এই যন্ত্র। তার মাধ্যমেই খনিজগুলির হদিশ পাওয়া গিয়েছে।

খনিজ দ্রব্যের পাশাপাশি ৭ মৌলেরও খোঁজ পাওয়া গিয়েছে। ইসরো আরও জানিয়েছে, চাঁদের মাটিতে অক্সাইডের খোঁজ মিলেছে। এখন খোঁজ চলছে হাইড্রোজেনের। হাইড্রোজেনের হদিশ মিললেই চাঁদে মিলতে পারে জল।

প্রসঙ্গত, গত ২৩ অগাস্ট চাঁদের দক্ষিণ মেরুতে চন্দ্রযান-৩-র সফল অবতরণ হয়েছে। যার জন্য ওই দিনদিকে জাতীয় মহাকাশ দিবস ঘোষণা করেছে কেন্দ্র। এবার চন্দ্রযান-৩-র অংশ প্রজ্ঞান রোভার চন্দ্রপৃষ্ঠে ঘুরে-ঘুরে সেখানকার মাটি, প্রকৃতি সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য প্রদান করতে শুরু করেছে। যা রীতিমতো চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করেছে।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

two − 1 =