মঙ্গলবারের থেকে ভাল আছেন মমতা, করা চলবে না চলাফেরা

মঙ্গলবার কপ্টার থেকে নামতে গিয়ে বাঁ-পায়ের লিগামেন্ট এবং পায়ের চোট পেয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তবে চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন মঙ্গলবারের তুলনায় একটু ভাল আছেন মুখ্যমন্ত্রী। তবে আঘাত জনিত ব্যথা এখন রয়েছে। আর এই ব্যথা বাড়তে পারে যদি তিনি বেশি চলাফেরা করেন। বুধাবর সন্ধেয় চিকিৎসদের একটি দল এবং ফিজিওথেরাপিস্ট প্রায় দু ঘণ্টা তাঁর শারীরিক অবস্থা পরীক্ষা ও পর্যবেক্ষণ করেন। এরপর তাঁদের পরামর্শ, মঙ্গলবার যে ওষুধ তাঁকে দেওয়া হয়েছে তা চালিয়ে যেতে হবে। একইসঙ্গে চলাফেরাও কম করার পরামর্শ দেওয়া হয়। তবে ফিজিওথেরাপিস্টদের দেখভালে এখন তাঁকে থাকতে হবে।

এদিকে বুধাবর সকালে চিকিৎসকেরা জানিয়েছিলেন, চোট লাগে লিগামেন্টে। তাঁর হাঁটুতে জল জমার চিহ্ন পাওয়া গিয়েছে বলেও খবর মেলে। চিকিৎসকেরা হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার পরামর্শ দিলেও আপাতত বাড়িতে থেকেই চিকিৎসা করাতে চলেছে মমতার।

ইতিমধ্যেই মুখ্যমন্ত্রীকে নি-ক্যাপও দেওয়া হয়েছে। তাঁর হাঁটাচলা নিয়ন্ত্রণ করতে বলেছেন চিকিৎসকেরা। থাকতে হবে বিশ্রামে। লাগাতে হবে আইসপ্যাক। প্রাথমিক চিকিৎসার পরেই তাঁর শারীরিক উন্নতি কতটা হয় তা দেখেই পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলে এসএসকেএম সূত্রে খবর। আপাতত তাঁকে ১৫ দিন পুরোপুরি বিশ্রামে থাকতে বলছেন এসএসকেএমের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকেরা।

প্রসঙ্গত, বর্তমানে এসএসকেএম হাসপাতালের ফিজিক্যাল মেডিসিনের তত্ত্বাবধানে রয়েছেন তিনি। মমতার আঘাত নিয়ে বলতে গিয়ে এসএসকেএমের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক মৌলিমাধব ঘটক জানান, ‘৫৫ থেকে ৬০ বছর বয়সের পরে লিগামেন্টগুলির ক্ষয় হতে শুরু করে। তার শক্তিটা অনেক কমে যায়। হঠাৎ কোনও ধাক্কা লাগলে তখন সহজেই চোট লেগে যেতে পারে। লিগামেন্ট হালকা বা পুরোপুরিভাবে ছিঁড়ে যেতে পারে। আপাতত ১৫ দিন বিশ্রামে থাকা উচিত বলে আমার মনে হয়।‘

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ten − three =