আগামী ৪৮ ঘণ্টায় বৃষ্টিপাতের পরিমাণ বাড়বে দক্ষিণবঙ্গে

বঙ্গোপসাগরের ওপর তৈরি সুস্পষ্ট নিম্নচাপ ক্ষেত্র আর কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই গভীর নিম্নচাপে পরিণত  হবে বলে মঙ্গলবার সকালে জানাল মৌসম ভবন। এদিকে বঙ্গোপসাগরের নিম্নচাপের পাশাপাশি উত্তরপ্রদেশে এই মুহূর্তে একটি সাইক্লোনিক সার্কুলেশন জারি রয়েছে। যা মধ্য ট্রপোস্ফিয়ার স্তর পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে। ভারতের মৌসম বিভাগ  বা আইএমডি নিজেদের ওয়েদার আপডেটে  ৩ অগাস্ট পর্যন্ত ভারতের বিভিন্ন স্থানে বৃষ্টিপাতের পূর্বাভাস দিয়েছে। বৃহস্পতিবার পর্যন্ত পূর্ব উত্তর প্রদেশ, বিহার, ঝাড়খণ্ড এবং ওড়িশায় বিচ্ছিন্ন ভারী বৃষ্টিপাতের বা কখনও কখনও হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টিপাতের পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছে। একইরকম আবহাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে রাজস্থানেও ৷ সেখানে ২ অগাস্ট পর্যন্ত এই আবহাওয়া জারি থাকবে। আইএমডি-র ওয়েদার আপডেট অনুযায়ী উত্তর পশ্চিম এদিকে বঙ্গোপসাগরের ওপরে তৈরি এই নিম্নচাপ একাধিক রাজ্যে প্রভাব ফেলবে। মূলত এরই জেরে ৪৮ ঘণ্টায় কলকাতা সহ দক্ষিণবঙ্গে বাড়বে বৃষ্টির পরিমাণ। মৌসম ভবনের তরফ থেকে পাওয়া খবর অনুসারে মঙ্গলবার বঙ্গে হঠাৎ-ই অনেকটাই বাড়বে বৃষ্টির পরিমাণ। অ্যাকুওয়েদারের ওয়েদার আপডেট অনুসারে কলকাতায় বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে মাঝারি থেকে ভারি বৃষ্টি হবে বিক্ষিপ্তভাবে। পাশাপাশি এও জানানো হয়েছে যে, বিকেলের দিক থেকে বজ্রবিদ্যুৎ সহ হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। এদিকে কলকাতার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা থাকতে পারে ৩২ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আপেক্ষিক আর্দ্রতার সর্বোচ্চ পরিমাণ হতে পারে  ৯১ শতাংশ অবধি। যার জেরে অস্বস্তি জারি থাকবে। ফলে বারেবারে বৃষ্টি হলেও দক্ষিণবঙ্গবাসী আর্দ্রতার হাত থেকে বাঁচছেন না। অতিরিক্ত আর্দ্রতার জেরে ফিল লাইক তাপমাত্রার সর্বোচ্চ পরিমাণ সেই ৪০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের ওপরেই থাকবে। অ্যাকুওয়েদারের ওয়েদার আপডেট অনুযায়ি মঙ্গলবারের সর্বোচ্চ ফিল লাইক তাপমাত্রা হতে পারে ৪১ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

এদিকে, ৩ আগস্ট পর্যন্ত আন্দামান ও নিকোবর দ্বীপপুঞ্জের কিছু অংশে ৪০ থেকে ৫০ কিলোমিটার প্রতি ঘণ্টা গতিবেগে ঝড়ো হাওয়ার সঙ্গে  বজ্র-বিদ্যুৎ- সহ বজ্রপাত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এর পাশাপাশি মধ্যপ্রদেশ, ছত্তিশগড়, গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গ, বিহার, ঝাড়খণ্ডের কিছু অংশেও বজ্রপাত সহ বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে ৷ মাঝারি থেকে ভারী বৃষ্টি হবে অসম, মেঘালয়, নাগাল্যান্ড, মণিপুর, মিজোরাম, ত্রিপুরা, মারাঠওয়াড়া, উপকূলীয় অন্ধ্রপ্রদেশ, ইয়ানাম, তামিলনাড়ু, পুদুচেরি এবং করাইকলেও। মাঝারি থেকে ভারী বৃষ্টি হবেহিমালয় পাদদেশ সংলগ্ন পশ্চিমবঙ্গে। একই চিত্র বজায় থাকবে পূর্ব মধ্যপ্রদেশ, ছত্তিশগড়, উপ- এবং সিকিম, বিহার, ঝাড়খণ্ড, মধ্য মহারাষ্ট্র, মারাঠওয়াড়া, উপকূলীয় অন্ধ্রপ্রদেশ এবং ইয়ানামের বিচ্ছিন্ন জায়গায় ১ অগাস্ট ৩ অগাস্ট পর্যন্ত।  বিদর্ভেও থাকবে একই আবহাওয়া। এই আবহাওয়া জারি থাকবে। উত্তরাখণ্ডে ১ থেকে ৩ অগাস্ট, পশ্চিম উত্তর প্রদেশে ১ ও ২ অগাস্ট এবং দিল্লি, হিমাচল প্রদেশ, পঞ্জাব, হরিয়ানা, এবং চণ্ডীগড় ২ ও ৩ অগাস্ট পর্যন্ত হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টিপাত সহ বিচ্ছিন্নভাবে ভারী বৃষ্টি পর্যন্ত হওয়ার অ্যালার্ট রয়েছে।

এরই পাশাপাশি আবহাওয়া অফিস ৩ আগস্ট পর্যন্ত উত্তর-পশ্চিম ভারতে বিচ্ছিন্ন বজ্রপাত এবং বজ্রপাত সব বৃষ্টির পূর্বাভাস দিয়েছে। আবহাওয়া বিভাগ আগামী পাঁচ দিনের মধ্যে পূর্ব মধ্যপ্রদেশ এবং উত্তর ছত্তিশগড়েও পূর্বাভাস রয়েছে বিচ্ছিন্নভাবে ভারী বৃষ্টিপাতের সঙ্গে হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টি, বজ্র-বিদ্যুৎ-সহ বৃষ্টি এবং বজ্রপাতের।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

twenty − 5 =