গরমে খেজুর খাওয়া উচিত!

শিশু হোক বা বয়স্ক- স্বাস্থ্যের জন্য খুবই উপকারী ড্রাই ফ্রুটস। আর ড্রাই ফ্রুটসের মধ্যে অন্যতম হল, খেজুর। দিনে দু-চারটে খেজুরেই দারুণ উপকার মেলে। তবে ড্রাই ফ্রুটস স্বাস্থ্যের জন্য খুব উপকারী হলেও এগুলির প্রকৃতি হল, গরম। অর্থাৎ এগুলি খেলে শরীর গরম থাকে। তাই সাধারণত শীতকালে বা শীতের জায়গায় ড্রাই ফ্রুটসের চল বেশি। ড্রাই ফ্রুটস স্বাস্থ্যের জন্য খুব উপকারী হলেও এগুলির প্রকৃতি হল, গরম। অর্থাৎ এগুলি খেলে শরীর গরম থাকে। তাই সাধারণত শীতকালে বা শীতের জায়গায় ড্রাই ফ্রুটসের চল বেশি। ড্রাই ফ্রুটসের কথা বললে প্রথমেই আসবে খেজুর। তাই এটি গরমকালে খাওয়া উচিত কি না, তা নিয়ে অনেকেই সংশয়ে থাকেন। গরমে খেজুর খাওয়া উচিত কি না এবং কয়টি খাওয়া উচিত, সে বিষয়ে জেনে নেওয়া যাক।

বিশিষ্ট পুষ্টিবিদের মতে, গ্রীষ্মকালেও খেজুর খেতে পারেন। তবে বেশি খাওয়া উচিত নয়। ১-২টি খেজুর ভিজিয়ে রোজ খেতে পারেন। এটা হার্ট থেকে বিপাকক্রিয়া ঠিক রাখতে সাহায্য করে। হার্ট সুস্থ রাখতে খেজুর খুবই উপকারী। তাই হার্টের স্বাস্থ্য ভাল রাখতে প্রতিদিন অন্তত ২টি করে খেজুর খাওয়ার অভ্যাস করুন। শিশু থেকে বয়স্ক, সকলের জন্যই এটি উপকারী। খেজুরে প্রচুর পরিমাণে আয়রন রয়েছে। ফলে রক্তাল্পতার সমস্যায় ভুগলে প্রতিদিন খেজুর খান। টানা কয়েকটি অন্তত ২টি করে খেজুর খেলেই উপকার মিলবে।

আর ক্যালসিয়ামের ভাল উৎস হল খেজুর। তাই হাড়ে বা গাঁটে ব্যথা হলে রোজ খেজুর খান। এটি হাড় মজবুত করে এবং হাড়ের ব্যথা কমাতে সাহায্য করে

শুধু তাই নয়, কোষ্ঠকাঠিন্যর সমস্যায় ডায়েটে রাখুন খেজুর। এতে প্রচুর পরিমাণে ফাইবার থাকে, যা হজমশক্তি বাড়ায়। ফলে রোজ সকালে ভেজানো খেজুর খেলে কোষ্ঠকাঠিন্যর সমস্যা কমে।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ten − 9 =