পঞ্চায়েত নির্বাচনে দলমত নির্বিশেষে মৃতদের তালিকা কেন্দ্রে পাঠানো হয়েছে বিজেপির তরফেই, দাবি সুকান্তর

তৃণমূল বারবার দাবি করেছে ভোট-হিংসায় যত মানুষের মৃত্যু হয়েছে, তার মধ্যে বেশির ভাগই তৃণমূল কর্মী, তা স্পষ্টই জানালেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের সঙ্গে বৈঠকের পর শনিবার তিনি কলকাতায় পা রেখেই জানান, ভোট-সন্ত্রাসে মৃতদের তালিকায় তৃণমূল-বিজেপি ফারাক করছেন না তাঁরা। প্রত্যেকের নামই কেন্দ্রীয় নেতৃত্বকে পাঠানো হচ্ছে বলেও দাবি করেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি।

প্রসঙ্গত, শুক্রবার দিল্লিতে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করেন তিনি। এরপরই শনিবার কলকাতায় ফিরে তিনি বলেন, তাঁরা চান দলমত নির্বিশেষে রাজ্যে যেন একজনেরও মৃত্যু না হয়। একইসঙ্গে বিজেপির রাজ্য সভাপতি এও জানান, রাজ্যে ভোট আবহে কতজনের মৃত্যু হয়েছে, সেই তালিকা তিনি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে দিয়ে এসেছেন। বিজেপি, তৃণমূল বা সিপিএমকে আলাদা করা হয়নি সেই তালিকায়। সঙ্গে এও জানান, ‘রাজ্যে কত হিংসার ঘটনা ঘটেছে, তার হিসেব প্রতিদিন পাঠানো হয় কেন্দ্রীয় নেতৃত্বকে। সেই মেল খুললেই দেখা যাবে, সেখানে তৃণমূল কর্মীর মৃত্যুর কথাও আছে। আমি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে চ্যালেঞ্জ করে বলতে পারি, আপনার সৎ সাহস থাকলে আমার সঙ্গে যোগাযোগ করুন, সেই লিস্ট দিয়ে দেব।’ এরই রেশ ধরে সুকান্ত এও জানান, ‘পশ্চিমবঙ্গের রাজনীতির সঙ্গে হিংসা বা মৃত্যুর একটা সম্পর্ক তৈরি হয়ে গিয়েছে।’ একইসঙ্গে তাঁর দাবি, তৃণমূল সরকার ক্ষমতায় আসার পরও পরিস্থিতির কোনও পরিবর্তন হয়নি।

শনিবার বিজেপি রাজ্য সভাপতি এও জানান,অগস্ট মাসেই কলকাতায় আসছেন অমিত শাহ। এমনাই নাকি কথা দিয়েছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। বাংলায় যাতে হিংসা নিয়ন্ত্রণ করা যায়, সে ব্যাপারে অমিত শাহের সঙ্গে কথা হয়েছে বলে জানান সুকান্ত। অমিত শাহ নাকি এও জানিয়েছেন, লাগাম ছাড়া হিংসায় যেটুকু নিয়ন্ত্রণ রয়েছে, তার সবটাই কেন্দ্রীয় বাহিনীর জন্য। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীও তাঁকে আশ্বাসও দিয়েছেন, বাংলায় যাতে হিংসার ঘটনা না ঘটে, সে দিকে নজর রাখবেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী স্বয়ং।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

twelve + two =